Common

১২ সেপ্টেম্বর ২০২১: স্কুল খোলা সংক্রান্ত নির্দেশনা

আসসালামুআলাইকুম,

বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক ঘোষিত দিকনির্দেশনা অনুযায়ী স্কুল ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট আগামী ১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ থেকে স্কুল প্রাঙ্গনে ক্লাস শুরু করতে যাচ্ছে ইন-শা-আল্লাহ। যেহেতু প্রতিদিন সর্বোচ্চ ২টি করে অন-ক্যাম্পাস ক্লাস করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে, তাই ১ম, ২য়, ৩য়, ৪র্থ, ৬ষ্ঠ, ৭ম, ৮ম, ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থীরা রুটিন অনুযায়ী সপ্তাতে ১দিন অন-ক্যাম্পাস ক্লাস করবে এবং বাকি ৪দিন পূর্বের অনলাইন রুটিন অনুযায়ী বাসা থেকে অনলাইনে ক্লাস করবে। নার্সারি ও কেজি শ্রেণির ক্লাস পূর্বের রুটিন অনুযায়ী সম্পূর্ণ অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে।

৫ম, ১০ম ও এস.এস.সি পরীক্ষার্থীরা রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার (প্রতিদিন) স্কুলে আসবে এবং দৈনিক ২টি করে ক্লাসে অংশগ্রহণ করবে। ৫ম, ১০ম ও এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের আর কোনো অনলাইন ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে না।

শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের জন্য সরকারি দিকনির্দেশনার আলোকে কিছু নির্দেশনা প্রদান করা হলো। সকলকে এই নির্দেশনাগুলো মেনে চলতে বিনীত অনুরোধ করা হচ্ছে।

শিক্ষার্থীদের জন্য: https://scdbd.org/12-sept-21-stdnt/
অভিভাবকদের জন্য: https://scdbd.org/12-sept-21-grdn/

উপরোক্ত সকল নির্দেশনাবলী ৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ পর্যন্ত প্রকাশিত সরকারি দিকনির্দেশনার উপর ভিত্তি করে করা হয়েছে। পরবর্তিতে পরিস্থিতি এবং সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী নতুন দিকনির্দেশনা দেওয়া হবে ইন-শা-আল্লাহ।

বি.দ্র.: পরবর্তি নির্দেশনার পূর্ব পর্যন্ত হিফজ ও নাজেরার সকল ক্লাস অনলাইনে অনুষ্ঠিত হবে।

১১/৯/২০২১ (শনিবার)-এর মধ্যে অনলাইন ও অন-ক্যাম্পাস ক্লাস রুটিন লিংক এস.এম.এস-এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হবে ইন-শা-আল্লাহ

মা আসসালামাহ,

অধ্যক্ষ,

এস.সি.ডি

১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ থেকে স্কুল খোলা সংক্রান্ত নির্দেশনা (শিক্ষক, শিক্ষিকা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য)

আসসালামু আলাইকুম, সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য। সালাত ও সালাম রাসুলের (ﷺ) উপর।

বর্তমানে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কিছুটা কমতে শুরু করায় বাংলাদেশ সরকার প্রাথমিক পর্যায়ে প্রাক-প্রাথমিক ক্লাসসমূহ ব্যতীত ১ম থেকে ১০ম ও এস.এস.সি শিক্ষার্থীদের জন্য সাধারণ শিক্ষা পুনরায় শুরু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে এবং এরই ধারাবাহিকতায় এস.সি.ডি স্কুল সরকারী সকল দিক-নির্দেশনা মেনে আগামী ১২/০৯/২১ (রবিবার) থেকে মোহাম্মদপুর ক্যাম্পাসের ক্লাস শুরু করতে যাচ্ছে, ইনশাআল্লাহ।

সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারি কিছু দিক-নির্দেশনার আলোকে এস.সি.ডি স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষক, শিক্ষিকা ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা কর্মচারীদের জন্য কিছু দিক-নির্দেশনা প্রণয়ন করেছে। 

আমরা আশা করি, সকলেই নিন্মোক্ত নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে মেনে স্কুল কার্যক্রম পুনরায় শুরু করতে সহযোগিতা করবেন।

নির্দেশনাসমূহ:

১। সকল শিক্ষক ও প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও কর্মচারী স্কুল প্রাঙ্গণে অবশ্যই মাস্ক (সম্ভব হলে কাপড়ের) পরে থাকবেন।

২। স্কুল প্রাঙ্গণে প্রবেশের পর নিচের তলায় নির্ধারিত স্থানে ভালোভাবে হাত ধুয়ে অফিসে/ক্লাসরুমে প্রবেশ করবেন।

৩। অসুস্থ বা জ্বর থাকলে স্কুলে আসবেন না এবং স্কুল কর্তৃপক্ষকে অবহিত করে ছুটি নিবেন।

৪। স্কুলে অবস্থানরত সময়ে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলবেন।

৫। শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীরা যেন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখে সেদিকে খেয়াল রাখবেন।

৬। যেহেতু দীর্ঘ সময় পর শিক্ষার্থীরা স্কুলে আসবে, শিক্ষার পরিবেশ যেন আনন্দঘন থাকে সেদিকে খেয়াল রাখবেন। শুরুতেই খুব বেশি বাড়ির কাজের জন্য চাপ প্রয়োগ করা যাবে না।

৭। কেউ করোনার টিকা না দিয়ে থাকলে দ্রুত রেজিস্ট্রেশন করবেন।

অনুরোধক্রমে,

অধ্যক্ষ

স্কুল ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট

১২ সেপ্টেম্বর ২০২১ থেকে স্কুল খোলা সংক্রান্ত নির্দেশনা (শিক্ষার্থীদের জন্য)

আসসালামু আলাইকুম, সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য। সালাত ও সালাম রাসুলের (ﷺ) উপর।

বর্তমানে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কিছুটা কমতে শুরু করায় বাংলাদেশ সরকার প্রাথমিক পর্যায়ে প্রাক-প্রাথমিক ক্লাসসমূহ ব্যতীত ১ম থেকে ১০ম ও এস.এস.সি শিক্ষার্থীদের জন্য সাধারণ শিক্ষা পুনরায় শুরু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে এবং এরই ধারাবাহিকতায় এস.সি.ডি স্কুল সরকারী সকল দিক-নির্দেশনা মেনে আগামী ১২/০৯/২১ (রবিবার) থেকে মোহাম্মদপুর ক্যাম্পাসের ক্লাস শুরু করতে যাচ্ছে, ইনশাআল্লাহ।

সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারি কিছু দিক-নির্দেশনার আলোকে এস.সি.ডি স্কুল কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের জন্য কিছু দিক-নির্দেশনা প্রনয়ন করেছে। 

আমরা আশা করি সকল শিক্ষার্থীরা নিন্মোক্ত নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে মেনে স্কুল কার্যক্রম পুনরায় শুরু করতে সহযোগিতা করবেন।

নির্দেশনাসমূহ:

১) শিক্ষার্থীরা অবশ্যই মাস্ক (সম্ভব হলে কাপড়ের) পরিধান করে স্কুল প্রাঙ্গণে প্রবেশ করবেন। আধোয়া/অপরিস্কার মাস্ক পরিধান করা থেকে বিরত থাকতে হবে।

২) স্কুলে প্রবেশের পর নিচ তলায় নির্ধারিত স্থানে সাবান ও পানি দিয়ে ভালোভাবে হাত ধুয়ে ক্লাস রুমে প্রবেশ করবেন।

৩) সকল শিক্ষার্থী অবশ্যই অতিরিক্ত ৩টি মাস্ক নিজের সাথে রাখবে।

৪) প্রত্যেক শিক্ষার্থী অবশ্যই নিজ নিজ পানির বোতল, ফ্লাস্ক ইত্যাদি সাথে করে নিয়ে আসবে। একজনের পানির বোতল অন্যজন ব্যবহার করবে না। পানির প্রয়োজন হলে স্কুলের ফিল্টার থেকে রিফিল করে নিবে।

৫) সাথে করে কোনো ধরনের খাবার নিয়ে আসবেন না।

৬) সার্বক্ষণিক মাস্ক পরিধান করে থাকবেন।

৭) ক্লাসে স্কুল কর্তৃক নির্ধারিত দূরত্ব বজায় রেখে বসবেন।

৮) স্কুলে প্রবেশের পর প্রত্যেক শিক্ষার্থী কিছুটা দুরত্ব বজায় রাখবেন। একে অপরের সংস্পর্শ এড়িয়ে চলবেন।

৯) রুটিন অনুযায়ী বই, খাতা, ডায়েরী, কলম ও পেন্সিল সহ প্রয়োজনীয় সব কিছু সাথে নিয়ে আসবেন। একে অপরের শিক্ষা উপকরণ ব্যবহার বা আদান-প্রদান করবেন না।

১০) ক্লাস শেষে / ক্লাসরুমে / স্কুলের নিচতলায় বসে গল্প করা বা খেলাধুলা করা যাবে না।

১১) খেলার মাঠ সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে।

১২) ক্লাস চলাকালীন কেউ অসুস্থ অনুভব করলে সাথে সাথে অফিসে উপস্থিত প্রশাসনিক দায়িত্বপ্রাপ্তদের জানাতে হবে।

১৩) বাসায় ফিরে গিয়ে নিয়ম অনুযায়ী প্রত্যেকে নিজের হাতমুখ, পরিধেয় বস্ত্র ও মাস্ক ভালো করে সাবান পানি দিয়ে ধুয়ে পরিস্কার করে নিবেন।

১৪) সকলে সাবধান থেকে নিজেকে, পরিবারের আপনজন ও অন্যকে সুস্থ রাখার চেষ্টা করবেন।

অনুরোধক্রমে,

অধ্যক্ষ

স্কুল ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট

১২ সেপ্টেম্বর ২০২১: স্কুল খোলা সংক্রান্ত নির্দেশনা (অভিভাবকদের জন্য)

আসসালামু আলাইকুম, সকল প্রশংসা আল্লাহর জন্য। সালাত ও সালাম রাসুলের (ﷺ) উপর।

বর্তমানে কোভিড-১৯ সংক্রমণ কিছুটা কমতে শুরু করায় বাংলাদেশ সরকার প্রাথমিক পর্যায়ে প্রাক-প্রাথমিক ক্লাসসমূহ ব্যতীত ১ম থেকে ১০ম ও এস.এস.সি শিক্ষার্থীদের জন্য সাধারণ শিক্ষা পুনরায় শুরু করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে এবং এরই ধারাবাহিকতায় এস.সি.ডি স্কুল সরকারী সকল দিক-নির্দেশনা মেনে আগামী ১২/০৯/২১ (রবিবার) থেকে মোহাম্মদপুর ক্যাম্পাসের ক্লাস শুরু করতে যাচ্ছে, ইনশাআল্লাহ।

সর্বোচ্চ স্বাস্থ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সরকারি কিছু দিক-নির্দেশনার আলোকে এস.সি.ডি স্কুল কর্তৃপক্ষ অভিভাবকদের জন্য কিছু দিক-নির্দেশনা প্রনয়ন করেছে। 

আমরা আশা করি সকল অভিভাবক নিন্মোক্ত নির্দেশনাগুলো যথাযথভাবে মেনে স্কুল কার্যক্রম পুনরায় শুরু করতে সহযোগিতা করবেন।

নির্দেশনাসমূহ:

১) প্রতিটি শিক্ষার্থী এবং অভিভাবক অবশ্যই মাস্ক (সম্ভব হলে কাপড়ের) পরিধান করে স্কুল প্রাঙ্গণে প্রবেশ করবেন এবং স্কুলে থাকাকালীন অবস্থায় সার্বক্ষনিকভাবে মাস্ক পরিধান করে থাকবেন। প্রত্যেক শিক্ষার্থীর কাছে যেন অবশ্যই অতিরিক্ত ৩টি মাস্ক থাকে তা নিশ্চিত করবেন।

২) যেহেতু দীর্ঘ প্রায় ১৮ মাস বন্ধ থাকার পর স্কুল পুনরায় খুলছে, তাই অধিকাংশ শিক্ষার্থীর ইউনিফর্ম হয়ত এখন আর ব্যবহার উপযোগী নেই। এমতাবস্থায়, সকল শিক্ষার্থী অবশ্যই স্কুলের ড্রেসকোড মেনে চলবে। যেমন: ছেলে শিক্ষার্থীরা সাদা বা হালকা রং-এর জোব্বা বা পাঞ্জাবী পড়বে, সাথে কালো সু/জুতা এবং মেয়ে শিক্ষার্থীরা (১ম – ৪র্থ শ্রেণি পর্যন্ত) সাদা বা অন্য যেকোনো হালকা রংয়ের ফ্রক, পাজামা ও হিজাব পরিধান করবে, সাথে কালো সু/জুতা। ৫ম-১০ম এবং এস.এস.সি পরীক্ষার্থীরা (মেয়ে) পূর্বের মত যথাযথ পর্দা করবে।

৩) যেহেতু সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অভিভাবকদের জন্য  অপেক্ষাগারের ব্যবস্থা করা আমাদের পক্ষে সম্ভবপর হচ্ছে না, তাই অভিভাবকদের প্রতি বিনীত অনুরোধ থাকবে, আপনারা শিক্ষার্থীদের স্কুলে পৌছে দেওয়ার পর যত দ্রুত সম্ভব স্কুল প্রাঙ্গন ত্যাগ করবেন। স্কুল অফিসে জরুরী কোনো কাজ থাকলে তা যত দ্রুত সম্ভব শেষ করবেন।

৪) যেহেতু প্রথমদিকে প্রতিদিন মাত্র ২টি করে ক্লাস অনুষ্ঠিত হবে, তাই শিক্ষার্থীদের সাথে কোনোধরনের খাবার দিবেন না।

৫) কোন শিক্ষার্থীর জ্বর, হাঁচি, কাশি ইত্যাদি লক্ষণ থাকলে শিক্ষার্থীদের স্কুলে পাঠানো থেকে বিরত থাকবেন।

৬) শিক্ষার্থীরা যেন রুটিন অনুযায়ী বই, খাতাসহ প্রয়োজনীয় সব কিছু নিয়ে স্কুলে আসে সেদিকে অভিভাবকবৃন্দ খেয়াল রাখবেন।

৭) স্কুলে থাকাকালীন অবস্থায় আমাদের সন্তানরা যেন স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলে, এ বিষয়ে নসিহা করবেন। কারন, ছোট শিশুদের সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা কম হলেও, তাদের মাধ্যমে বাসার অন্যান্য সদস্যদের সংক্রমিত হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যায়।

৮) যেহেতু দীর্ঘদিন পর স্কুল খুলছে এবং আমরা একইসাথে অনলাইন ও অফলাইনে ক্লাস পরিচালিত হবে, এক্ষেত্রে স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে যেকোনো ত্রুটি/বিচ্যুতি ক্ষমাসুন্দর দৃষ্টিতে দেখবেন এবং এই নতুন পরিস্থিতির সাথে দ্রুত মানিয়ে নেওয়ার জন্য আপনাদের সবার দু’আ ও সহযোগীতার হাত প্রসারিত করবেন বলে আমরা আশা করি।

অনুরোধক্রমে,

অধ্যক্ষ

স্কুল ফর কমিউনিটি ডেভেলপমেন্ট

অন্তরের রোগ (এ্যাসাইনমেন্ট-১)

অহংকার

১। কিবর বা অহংকারের অর্থ কী?

২। মানুষ কী নিয়ে অহংকার করে?

৩। অহংকারের চিকিৎসা নিয়ে আলোচনা করুন।

ঝগড়া-বিবাদ

১। জিদাল অর্থ কি? কুরআন দিয়ে জিদাল করার অর্থ কী?

২। প্রশংসনীয় বিতর্কের ৫টি শর্তাবলি লিখুন ।

৩। বিতর্কের প্রকারভেদ সম্পর্কে লিখুন।

৪। ঝগড়া বিবাদের ফলে কী কী ক্ষতি হতে পারে? (৫টি ক্ষতি)

প্রবৃত্তির অনুসরণ

১। অন্তরের রোগ হিসাবে ‘প্রবৃত্তির অনুসরণ’ সম্পর্কে লেকচারের আলোকে লিখুন।

অলসতা

১। অন্তরের রোগ হিসাবে লেকচারের আলোকে অলসতার উপর ১২ লাইন লিখুন।

*জমা দেওয়ার শেষ তারিখ: ৫ অক্টোবর, ২০২১

  • A4 পৃষ্ঠায় এ্যাসাইনমেন্ট করতে হবে। এ্যাসাইনমেন্ট-এর উপরে একটি কাভার পেজ-এ শিক্ষার্থীর নাম ও শিফট উল্লেখ করতে হবে।
  • এ্যাসাইনমেন্টটি অবশ্যই উস্তাজার লেকচার নির্ভর হতে হবে। অপ্রাসঙ্গিক কথা দিয়ে এ্যাসাইনমেন্ট-এর কলেবর বৃদ্ধি করা থেকে বিরত থাকতে হবে।
  • এ্যাসাইনমেন্ট শিরোনাম: অন্তরের রোগ (এ্যাসাইনমেন্ট-১)

৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে প্রকাশিত এ্যাসাইনমেন্ট সংক্রান্ত নোটিস

আসসালামু আ’লাইকুম।

এই মর্মে জানানো যাচ্ছে যে, সরকারী নির্দেশনা (স্মারক নং: ৩৭.০২.০০০০.১০৭.৩৭.০০৩.২১.৪২৭, তারিখ: ২৪.৭.২১, শিক্ষা অধিদপ্তর) অনুযায়ী এসাইনমেন্ট স্থগিত করা সংক্রান্ত যে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছিল সরকারীভাবে তা প্রত্যাহারপূর্বক পুনরায় এ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম চালু করা হয়েছে। এই ঘোষনার পরিপ্রেক্ষিতে আমাদের স্কুল থেকে গত ২২.৮.২১, রবিবার ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের জন্য শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে প্রকাশিত শুধুমাত্র দ্বাদশ সপ্তাহের এ্যাসাইনমেন্টটি ২৬.৮.২১ বৃহস্পতিবার জমা দেয়ার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছিল। প্রথম থেকে একাদশ সপ্তাহের সকল এ্যাসাইনমেন্ট একত্রে ২৬.৮.২১ তারিখে জমা দেওয়ার বিষয়ে নয়।

উল্লেখ্য যে, ৯ম সপ্তাহ পর্যন্ত সাপ্তাহিক এ্যাসাইনমেন্টসমুহ স্থগিতাদেশে আসার আগেই আমাদের স্কুলের ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছিল। ইতিমধ্যে, আমরা ১০ম এবং ১১তম সপ্তাহের এসাইসমেন্টগুলোও ওয়েবসাইটে আপলোড করেছি।

বিশেষভাবে উল্লেখ্য যে, সরকার এ্যাসাইনমেন্ট প্রদানের বিষয়ে শুধুমাত্র স্থগিতাদেশ ঘোষনা করেছিল, কিন্তু এই ঘোষনাকে কোনোভাবেই এ্যাসাইনমেন্ট কার্যক্রম বাতিল বা প্রত্যাহার হিসাবে ধরে নেওয়া সঠিক নয়।

অতএব, ৬ষ্ঠ থেকে ৯ম শ্রেনীর সকল শিক্ষার্থীকে শিক্ষা অধিদপ্তর থেকে প্রকাশিত সকল এ্যাসাইনমেন্ট স্কুলে জমা দেওয়ার জন্য অনুরোধ করা যাচ্ছে।

Ramadan 2021 – Assignment Submission List (SCD Mohammadpur)

উপরের লিস্ট-এ উল্লিখিত নাম অনুযায়ী শিক্ষার্থীর অভিভাবকবৃন্দ আগামী ১৬ আগস্ট ২০২১ (সোমবার, সকাল ৯:০০টা থেকে দুপুর ১:০০টার মধ্যে) স্কুল থেকে রমাদান ২০২১-এ প্রদত্ত এ্যাসাইনমেন্ট-এর কপি এবং হাদিয়া সংগ্রহ করবেন, ইন-শা-আল্লাহ।

তবে ১৬/৮/২০২১ (সোমবার) সংগ্রহ করতে না পারলে অন্য যেকোনো দিন (রবিবার – বৃহস্পতিবার) সংগ্রহ করা যাবে, ইন-শাআল্লাহ)

মা-আসসালামাহ,

এস.সি.ডি এডমিন।